আমার শহর শিলিগুড়িঃ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘোষণার পর গত ২৪ শে মার্চ থেকে দেশ জুড়ে শুরু হয় লকডাউন। এরই মাঝে বি.সি.জি.-র সমীক্ষা রিপোর্টে নতুন করে কপালে ভাঁজ পড়েছে দেশবাসীর। কারণ তাদের রিপোর্ট অনুযায়ী, জুনের শেষ সপ্তাহ অথবা সেপ্টেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত ভারতে লকডাউন চলতে পারে।
লকডাউনে চিনের পরিস্থিতি এবং ভারতের স্বাস্থ্যের পরিকাঠামোর উপর ভিত্তি করেই তৈরি হয়েছে এই রিপোর্ট। বি.সি.জি-র দাবি, ভারতের অত্যাধিক জনসংখ্যা এবং অনুন্নত স্বাস্থ্য ব্যবস্থার জন্যই এত তাড়াতাড়ি লকডাউন তুলে নেওয়া সম্ভব হবে না। তা অন্তত সেপ্টেম্বর পর্যন্ত গড়াতে পারে। শুধু তাই নয়, তাদের সমীক্ষা বলছে, জুনের তৃতীয় সপ্তাহে ভারতে COVID-19 আক্রান্তের সংখ্যা ভয়াবহ রূপ নিতে পারে। তবে যদি এরপর প্রশাসন লকডাউন তোলার কথা চিন্তা করে, সেক্ষেত্রে গৃহবন্দি দশা কাটতে পারে জুনের শেষ সপ্তাহে। স্বাভাবিকভাবেই এমন রিপোর্ট উদ্বেগ বাড়াচ্ছে।
কলম্বিয়া, পোল্যান্ড এবং ব্রিটেনেও ২৪ মার্চই লকডাউন শুরু হয়েছে। বি.সি.জি.-র সমীক্ষা বলছে, জুন-জুলাই পর্যন্ত সে সব দেশে লকডাউন চলতে পারে। তবে ভারতের স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে আরও বেশ কিছু সময় লাগতে পারে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, চিনের হুবেই প্রদেশে ২৩ জানুয়ারি শুরু হয় লকডাউন। যা উঠবে আগামী ৮ এপ্রিল। অর্থাৎ করোনা মোকাবিলায় লকডাউন আরো চলতে পারে সে ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে এই তথ্যের মাধ্যমে। এছাড়া ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, দক্ষিণ আফ্রিকার মতো উন্নতশীল দেশগুলিতেও আগস্ট মাস পর্যন্ত লকডাউন চলতে পারে বলে জানাচ্ছে বি.সি.জি.রিপোর্ট।