আমার শহর শিলিগুড়িঃ অবশেষে উচ্চমাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষার দিন ঘোষণা করলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবে কোন দিন কি পরীক্ষা হবে তা ঠিক করবে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। উচ্চমাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষাগুলো নেওয়া হবে ২৯ শে জুন এবং ২ রা ও ৬ ই জুলাই। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে পরীক্ষা নেওয়ার ক্ষেত্রে একাধিক বিধিনিষেধও জারি থাকবে। যেমন পরীক্ষার সময় সকল ছাত্র-ছাত্রীদের স্যানিটাইজার বোতল সাথে রাখতে হবে এবং সেই সাথে বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক বা ফেস কভার পরে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে ছাত্র-ছাত্রীদের। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় আরও জানিয়েছেন “সামাজিক দূরত্বের নিয়ম নীতি মেনেই প্রত্যেকটি কেন্দ্রে পরীক্ষা নেওয়া হবে। পরীক্ষার সময় প্রত্যেকটি বেঞ্চে একজন করে পরীক্ষার্থী বসবেন। এরপর দ্বিতীয় বেঞ্চ খালি রেখে আবার তৃতীয় বেঞ্চে বসবেন পরীক্ষার্থীরা।” জোড়-বিজোড় নীতি মেনেই উচ্চমাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষাগুলো নেওয়া হবে।
⚫ ২৯ শে জুন ফিজিক্স, নিউট্রেশন, এডুকেশন ও অ্যাকাউন্টেন্সি।
⚫ ২ রা জুলাই
কেমিস্ট্রি, ইকোনমিক্স, জার্নালিজম এন্ড মাস কমিউনিকেশন, সংস্কৃত, পার্শিয়ান, অ্যারাবিক ও ফ্রেঞ্চ।
⚫ ৬ ই জুলাই
স্ট্যাটিসটিকস, ভূগোল, কস্টিং অ্যান্ড ট্যাক্সেশন, হোম ম্যানেজমেন্ট এন্ড ফ্যামিলি রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট।
এই তারিখ গুলোতে উক্ত বিষয়গুলোর পরীক্ষা গুলো হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।
শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন প্রত্যেকটি পরীক্ষা কেন্দ্র কিভাবে পরীক্ষা পরিচালনা করবে তা বৃহস্পতিবার উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ বিস্তারিত গাইড লাইন প্রকাশ করবে খুব শীঘ্রই। উচ্চমাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষা গুলি শেষ হওয়ার এক মাসের মধ্যেই ফল প্রকাশের চেষ্টা করা হবে। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ ইতিমধ্যেই হয়ে যাওয়া বিষয়গুলির পরীক্ষার উত্তরপত্রের নম্বর সংগ্রহের কাজ শুরু করেছে। বাকি যে পরীক্ষাগুলি রয়েছে সেগুলি শেষ হওয়ার এক মাসের মধ্যেই উচ্চ মাধ্যমিকের ফলাফল প্রকাশের চেষ্টা করা হবে। উচ্চ মাধ্যমিকের নম্বর সংগ্রহের কাজ শুরু করেছে সংসদ। অবশেষে শিক্ষামন্ত্রীর এই ঘোষণায় উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার অনিশ্চয়তা কেটে গেল।