শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতালেও এবার করোনার থাবা। শিলিগুড়ির টিকিয়াপাড়ার বাসিন্দা এক রোগীনির কোরোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে এবং তিনি সিসিইউতে ভর্তি ছিলেন। কিছুদিন আগে সন্তান প্রসবের জন্য ওই মহিলা প্রসুতি হাসপাতালে এসেছিলেন এবং কয়েকদিন আগে এক সন্তান জন্ম দেন। যদিও তাঁর সন্তান মারা যায়। তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে সিসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। ইতিমধ্যে ওই মহিলার লালা রসের পরীক্ষাও করা হয়েছিল এবং তা পজিটিভ আসে। এর পরেই হাসপাতালের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয় যে- ওই প্রসুতির সোয়াব রিপোর্ট গতকাল রাতে পসিটিভ এলেও তাকে এদিন সকাল পর্যন্ত হাসপাতালের সিসিইউতেই কেন রেখে দেওয়া হয়। এর ফলে আতঙ্ক ছড়ায় হাসপাতালে কর্মরত নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে এবং তারা সকলে ক্ষোভও প্রকাশ করেন। চাপে পড়ে তড়িঘড়ি ওই প্রসুতিকে কোভিড হাসপাতালে পাঠানো হয়।