নীলাঞ্জন সেনগুপ্তঃ এক নারীর ৪৪ জন সন্তান জন্ম দেওয়ার এক অবিশ্বাস্য ইতিহাস। অনেকের কাছে এটি অবিশ্বাস্য মনে হলেও ঠিক এই ঘটনাটিই ঘটেছে উগান্ডার এক পরিবারে। বর্তমানে সন্তানদের নিয়ে একত্রে বসবাস করছেন তিনি।
উগান্ডার মরিয়ম নবতানজি। মাত্র ৩৯ বছর বয়সে ৪৪ টি সন্তানের জন্ম দেওয়ায় তিনি এখন বিশ্বজুড়ে আলোচিত। প্রথমে ৪ টি করে ৫ বার ২০ টি সন্তান। ৩ টি করে ৫ বার ১৫ টি সন্তান। ২ টি করে ৪ বার ৮ টি সন্তান এবং শেষে ১ টি অর্থাৎ সর্ব মোট ৪৪ টি সন্তানের জন্ম দেন তিনি।

এতো অল্প বয়সেই এতগুলো সন্তানের মা হওয়াতে তাকে উগান্ডার ‘সবচেয়ে উর্বর নারী’ বলা হয়। মারিয়ামের এই শিশুদের মধ্যে চার জোড়া যমজ সন্তান রয়েছে। একসঙ্গে পাঁচ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন এমন ঘটনা ঘটেছে তিনবার। ১৩ বছর বয়সে বিয়ে হওয়া মারিয়াম বলেন, আমি ছয় সন্তানের মা হতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আমি চারবার মা হই এবং প্রত্যেকবারই যমজ সন্তানের জন্ম দেই। তবে আট সন্তান আমার চাওয়ার চেয়েও বেশি ছিল। তাই আমি হাসপাতালে গিয়ে ডাক্তারকে বলি, তিনি যেন আমার সন্তান জন্ম দেয়া বন্ধ করে দেন। আমি জন্ম নিরোধক ব্যবহারেরও চেষ্টা করেছি কিন্তু সেগুলো কাজ করেনি। উল্টো ডাক্তারি পরীক্ষায় আমার হাইপাররোভ্যুলেশন নামে বিরল এক শারীরিক অবস্থা ধরে পড়ে। এটি এমন একটি অবস্থা যেখানে আক্রান্ত নারী যখনই মা হবেন তখন সে যমজ, তিন বা চারটি সন্তানের জন্ম দেবেন। উগান্ডার এই নারী আরও বলেন, আমি সন্তান জন্ম দেয়ার ক্ষেত্রে খুবই ‍উর্বর।

অত্যাধিক সন্তান জন্ম দেওয়ার কারনে তার স্বামী তাকে ছেড়ে চলে যায়। তবে মরিয়ম একাই সমস্ত সন্তানের প্রতিপালনের দায়িত্ব গ্রহন করেন। এর জন্য তিনি কেক বানাবার ব্যবসা এবং কনে সাজাবার কাজও করেন। তার ইচ্ছে তার সন্তানেরা যেন উচ্চ শিক্ষা লাভ করতে পারে। আর এর জন্য মরিয়ম দিন রাত কাজ করে সন্তানদের প্রতিপালন করে চলেছেন।
তথ্যসুত্রঃ dmpnews.org