রুহনীল বসুঃ এক ভয়াবহ এবং অমানবিক ঘটনার সাক্ষী হয়ে রইল দেশ। করোনা আক্রান্ত তরুনীকে অ্যাম্বুলেন্সে করে নিয়ে যাবার সময় ধর্ষন করলো অ্যাম্বুলেন্সের চালক। ঘটনাটি ঘটেছে কেরলের রাজধানী তিরুবনন্তপুরম থেকে ১০০ কিমি দূরে পান্ডালামে।
দেশ জুড়ে এই ঘটনায় তীব্র নিন্দার ঝড় উঠেছে। ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন কেরলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী কে.কে. শৈলজা। পাশাপাশি তিনি ওই অ্যাম্বুলেন্স চালকের কড়া শাস্তির ব্যবস্থা করতে নির্দেশ দিয়েছেন।
এই ঘটনার পর ওই কোভিড আক্রান্ত তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ওই অ্যাম্বুলেন্স চালককে গ্রেফতার করে। জানা যায় অভিযুক্ত চালক ১০৮ অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত।
২৫ বছরের ওই অ্যাম্বুলেন্স চালকের নাম নওফল। কেরল পুলিশ জানায় দুজন করোনা আক্রান্তকে দুইটি ভিন্ন হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছিল ওই অ্যাম্বুলেন্স চালক। প্রথমে এক বৃদ্ধাকে নির্দিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে তারপর ওই উনিশ বছরের করোনা আক্রান্ত তরুণীকে নিয়ে অন্য হাসপাতালের উদ্দেশ্যে রওনা হয় চালক। কিন্তু হাসপাতালে না পৌঁছে ওই তরুণীকে একটি ফাঁকা মাঠে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে ওই অ্যাম্বুলেন্স চালক নওফল। তরুনীকে হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হলে সে সমস্ত বিষয় পুলিশকে জানায়। তার অভিযোগের ভিত্তিতেই পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে।

এমন ভয়াবহ ঘটনায় সত্যিই প্রশ্নের মুখে মানুষের মানবিকতা। দোষীর কঠিন থেকে কঠিন শাস্তির দাবী জানাই।