দীপা দাসঃ দেশে বেকারত্ব চার দশকের সর্বোচ্চ সীমায়। করোনা আবহে চাকরি নেই অসংখ্য মানুষের। নিম্নবিত্ত গরিব মানুষের অবস্থা শোচনীয়। অবস্থা ক্রমশ খারাপ থেকে খারাপের দিকে যাচ্ছে। এই মুহূর্তে ৮৬১.৯০ কোটি টাকা খরচ করে দেশে তৈরী হতে চলেছে নতুন সংসদ ভবন। আর এর দায়িত্ব পেল টাটা গোষ্ঠী। ৮৬১.৯০ কোটি টাকা সর্বনিম্ন দরপত্র দিয়ে এই বরাত জিতে নিয়েছে ‘টাটা প্রজেক্টস’। ২১ মাসের মধ্যে নতুন সংসদ ভবন তৈরির কাজ শেষ হওয়ার কথা। বুধবারই এই নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হয় কেন্দ্রীয় পূর্ত মন্ত্রকের পক্ষ থেকে। জানা গিয়েছে, এই নতুন সংসদ ভবন হবে বর্তমান সংসদ ভবনের পাশেই। তবে বর্তমান সংসদ ভবন যেমন গোলাকার, তবে, নতুন ভবন হবে ত্রিকোণাকার। সংসদে থাকবে ৯০০ থেকে ১২০০ সাংসদের বসার আসন। রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে ইন্ডিয়া গেট, তিন কিলোমিটার জুড়ে হবে সেন্ট্রাল ভিস্টা। এখন প্রশ্ন উঠেছে দেশের এই কঠিন সময়ে এই অর্থ কি এই খাতে খরচ করা খুব দরকার?