উজ্জ্বল দাসঃ করোনা আক্রান্ত হয়ে ৭ মাসের অন্তঃস্বত্বা চিকিৎসকের মৃত্যুতে দেশজুড়ে শোক চিকিৎসক মহলে। মহারাষ্ট্রের অমরাবতী জেলার আইরিন সরকারি হাসপাতালে প্যাথলজি বিভাগের চিকিৎসক ৩২ বছর বয়সী ডাঃ গায়েত্রী ওয়াদেকার গাওয়াই। সাত মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা এই চিকিৎসক মানুষের সেবা করার ধর্মকে জীবনের একমাত্র কর্ম হিসেবে বেছে নেন। মাতৃত্বকালীন ছুটিও তিনি বাতিল করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চিকিৎসা করে যাচ্ছিলেন। তবে শেষরক্ষা হল না। জ্বর, শ্বাসকষ্ট, গলা ব্যথার মতো করোনার একাধিক উপসর্গ নিয়ে তিনি আইরিন সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানেই তার করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসে। দিন দুয়েকের মধ্যেই শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে শুরু হয়। এরপর ডাঃ গায়েত্রীকে নাগপুরের সরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখানে দশ দিন ভেন্টিলেশনে ছিলেন। রবিবার হাসপাতালেই শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন চিকিৎসক গায়ত্রী ওয়াদেকার। শ্রদ্ধা রইল এই করোনা যোদ্ধার প্রতি।