রুহদ্রোনীল পালঃ নিখোঁজ হয়ে যাওয়া নাবালিকাকে উদ্ধার করে কোচবিহার থেকে শিলিগুড়ি ফেরার পথে এক ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন শিলিগুড়ির প্রধাননগর থানার এক পুলিশ কর্মী সহ চারজন। আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। কিছুদিন আগে এক নাবালিকার নিখোঁজ হয়ে যাবার ঘটনার তদন্তে নেমে কোচবিহারের সাহেবগঞ্জ এলাকায় নাবালিকার খোঁজ পায় পুলিশ। এরপর বুধবার সেই নাবালিকার খোঁজে কোচবিহারে যায় প্রধাননগর থানার এস.আই.বিশ্বজিৎ দাস,কনস্টেবল গোবিন্দ সেন সহ মহিলা পুলিশ কর্মী চন্দনা পাল এবং নিখোঁজ হয়ে যাওয়া নাবালিকার আত্মীয় পরিজন। আর ওইদিনই কোচবিহার থেকে নাবালিকাকে উদ্ধার করে পুলিশ। নাবালিকাকে অপহরণ করার অভিযোগে এক কৈলাস নামে এক যুবককে গ্রেফতার করে রাতেই কোচবিহার থেকে শিলিগুড়ি ফিরছিল তারা। সেইসময় কোচবিহারের কাছাকাছি ঘোকসাডাঙা থানার অন্তর্গত কুশিয়াবাড়িতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নয়ানজুলিতে গাড়িটি উলটে যায়। জানা যায় একটি কুকুর হঠাৎ গাড়ির সামনে চলে এলে ড্রাইভার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। গাড়িটিতে চালক সহ মোট আটজন ছিলেন। ঘটনায় মৃত্যু হয় প্রধাননগর থানার কনস্টেবল গোবিন্দ সেন,নাবালিকা জোৎস্না কর,নাবালিকার মা শিপ্রা কর এবং নাবালিকার কাকা প্রদীপ দেবনাথের। আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন প্রধাননগর থানার এস.আই. বিশ্বজিৎ দাস সহ মহিলা পুলিশ কর্মী চন্দনা পাল এবং অভিযুক্ত যুবক কৈলাস। তবে গাড়ির চালকের কোন খোঁজ এখনো পাওয়া যায়নি।