উজ্জ্বল দাসঃ এবছর হাড় কাঁপানো ঠান্ডায় জমতে পারে ভারত। এমনটাই বলছে আবহাওয়া দফতর। এর কারন দুর্বল “লা নিনা’র অবস্থান।” আর তার কারনেই এই বছর আরও বেশি শীত পড়তে চলেছে।
এই সময় এতটা ঠান্ডা পরে না। অর্থাৎ যা গত ৫৮ বছরে হয়নি। তা ঘটছে। মঙ্গলবার সকালে কুঁয়াশার চাদরে ঢেকেছিল ভোরের শহর ও শহরতলি। দিল্লির তাপমাত্রাও জাঁকিয়ে শীত পড়ার ইঙ্গিত দিচ্ছে। অক্টোবর মাসের শেষ সপ্তাহ থেকেই এক ধাক্কায় কমতে শুরু করেছে তাপমাত্রা। গায়ে শির শিরে কাঁপুনিতে, শীতের পোশাক টেনে বের করতে হচ্ছে শহরবাসীদের। দিল্লিতে তাপমাত্রা নভেম্বরের শুরুতেই ১৭.২ ডিগ্রীতে। কোথাও কোথাও ফাঁকা নির্জন এলাকায় তাপমাত্রা পৌঁছে যাচ্ছে ১৫ ডিগ্রীতে। জম্মু-কাশ্মীর, শ্রীনগরে তাপমাত্রা শূন্য। লুধিয়ানা, পাঞ্জাব পুনে ও দেরাদুনের তাপমাত্রা ১৪.৩ ডিগ্রী। আবহাওয়া দফতরের কথায়, “যেহেতু দুর্বল লা নিনার অবস্থান বিরাজ করছে, তাই এই বছর আরও বেশি শীত পরবার সম্ভাবনা রয়েছে।”